পাঁচ প্রতিষ্ঠানের অর্থ পাচারের তদন্তে দুদকের অনুসন্ধান শুরু

পাঁচ প্রতিষ্ঠানের অর্থ পাচারের তদন্তে দুদকের অনুসন্ধান শুরু

পাঁচ প্রতিষ্ঠানের অর্থ পাচারের তদন্তে দুদকের অনুসন্ধান শুরু

📅05 April 2018, 20:44

০৫ এপ্রিল, CNBD : অর্থ লেনদেনে ব্যবহৃত ব্র্যাংক ব্যাংকের বিকাশ, ডাচ-বাংলার রকেট সার্ভিস এবং সুন্দরবন, এসএ পরিবহন ও কন্টিনেন্টাল কুরিয়ার সার্ভিসের বিরুদ্ধে আসা দুর্নীতির অভিযোগ অনুসন্ধান করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য জানান, বৃহস্পতিবার সংশ্লিষ্টদের কাছে দুদকের উপ-পরিচালক মো. মাহমুদুল হাসান স্বাক্ষরিত চিঠি পাঠানো হয়েছে।

অভিযোগের সংক্ষিপ্ত বিবরণীতে বলা হয়, বিকাশ, রকেট, সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস, এসএ পরিবহন ও কন্টিনেন্টাল কুরিয়ার সার্ভিসের বিরুদ্ধে সরকারি নীতিমালা লঙ্ঘন করে ঘুষ লেনদেন, মানিলন্ডারিং, ইয়াবা ব্যবসায় অর্থ লেনদেন এবং সন্ত্রাসী অর্থ লেনদেনের অভিযোগ করা হয়েছে।

চিঠিতে আগামী ১২ এপ্রিল বিকাশ লিমিটেডের রেগুলেটরি অ্যান্ড করপোরেট অ্যাফেয়ার্স ডিপার্টমেন্টের জেনারেল ম্যানেজার হুমায়ুন কবিরকে দুদকে তলব করা হয়েছে।

একইভাবে ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের এসএভিপি অ্যান্ড হেড অব এফআইডি সাইফুল আলম মো. কবিরকে ১৫ এপ্রিল তলব করা হয়েছে।

অন্যদিকে তিন কুরিয়ার সার্ভিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বরাবর চিঠিতে আগামী ১২ এপ্রিলের মধ্যে বিভিন্ন রেকর্ডপত্র সরবরাহ করতে বলা হয়েছে।

এর মধ্যে রয়েছে- কুরিয়ার সার্ভিসসমূহের নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষেরর নাম, অর্থিক লেনদেনের যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতিপত্র, টাকা ট্রান্সফারের ক্ষেত্রে পোস্টাল নীতিমালা, কোনো ব্যক্তি সর্বোচ্চ কি পরিমাণ অর্থ প্রেরণ করলে নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষের জানানোর নিয়ম রয়েছে, অর্থ লেনদেন করলে জতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি গ্রহণ করা হয় কিনা, সন্দেহজনক লেনদেন সিআইডি, পিআইবি, র্যা ব ইত্যাদি সংস্থাসমূহকে জানানো হয় কি না ইত্যাদি।

চিঠিতে এ সমস্ত কাজ করে থাকলে তার কাগজপত্র ও আনুসঙ্গিক অন্যান্য কাগজপত্র চাওয়া হয়েছে বলেও জানান প্রণব কুমার ভট্টাচার্য।

No Comments

No Comments Yet!

You can be first one to write a comment

Leave a comment