বাংলাদেশ ও রাশিয়ার মধ্যে গঠিত হচ্ছে আন্তঃসরকার কমিশ

বাংলাদেশ ও রাশিয়ার মধ্যে গঠিত হচ্ছে আন্তঃসরকার কমিশ

বাংলাদেশ ও রাশিয়ার মধ্যে গঠিত হচ্ছে আন্তঃসরকার কমিশ

📅22 March 2016, 11:11

ঢাকা, CNBD : বাংলাদেশ ও রাশিয়াপর মধ্যে বাণিজ্য, অর্থনীতি, বৈজ্ঞানিক ও কারিগরি সহায়তার বিষয়ে আন্তঃসরকার কমিশন গঠিত হবে। সোমবার মস্কোতে অনুষ্ঠিত পররাষ্ট্র দফতরের মধ্যকার আলোচনায় এ সিদ্ধান্ত হয়। এ সময় আগামী বছর পররাষ্ট্র দফতরের উচ্চপর্যায়ের আলোচনা ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে বলেও বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়। নির্ধারিত বৈঠক ছাড়াও বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মস্কোতে বোর্ড অব দ্য ইউরোপিয়ান ইকোনমিক কমিশনের সদর দফতরের সংস্থাটির সদস্য তাত্যানা ভ্যালোভ্যা’র সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। আজ মঙ্গলবার ঢাকায় প্রাপ্ত এক বার্তায় জানা যায় যে, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলীর আসন্ন জুনে রাশিয়া সফরে এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে।

এ বৈঠকে সংস্থাটির সদস্য রাষ্ট্র এবং রাশিয়ান ফেডারেশন, বেলারুশ, কাজাকিস্তান, কিরগিজস্তান ও আর্মেনিয়ায় বাংলাদেশের রফতানি পণ্যের শুল্কমুক্ত ও কোটামুক্ত প্রবেশাধিকারসহ বাংলাদেশ ও কমিশনের মধ্যে সম্ভাব্য সহযোগিতার সুযোগ সম্পর্কে আলোচনা হয়।

মস্কোতে ঐতিহাসিক স্টেট গেস্ট হাউসে অনুষ্ঠিত এ আলোচনায় বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক এবং অপর পক্ষে নেতৃত্বে ছিলেন রাশিয়ার ডেপুটি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মরগুলব ইগোর ভ্যালাদিমিরোভিচ। বৈঠকে দু’দেশের সামগ্রিক আলোচনায় বাণিজ্য, অর্থনীতি, শিক্ষা, বৈজ্ঞানিক ও কারিগরি এবং প্রতিরক্ষা খাতে সম্পর্ক আরো জোরদার করতে বিশেষ করে কিছু দ্বিপক্ষীয় বিষয় দ্রুত সম্পন্নের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

দু’দেশের বন্ধুত্বের ঐতিহাসিক ও দৃঢ় বন্ধনের কথা উল্লেখ করে রাশিয়ার ডেপুটি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশনারী নেতৃত্বের প্রতি আলোকপাত করেন। বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক নতুন মাত্রায় উন্নীত করতে উভয় দেশের মধ্যে উচ্চপর্যায়ের নিয়মিত সফর বিনিময়ের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়। উভয় পক্ষের আলোচনায় তৈরি পোশাকসহ আইসিটি ও টেলিকম, খাদ্যশস্য, খনিজ ও সার, ওষুধের মতো শিল্পে সম্টপর্ক জোরদারের সম্ভাব্যতা চিহ্নিত করা হয়। এ সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক স্বার্থ সম্পর্কিত বিষয়ে আলোচনা হয়

No Comments

No Comments Yet!

You can be first one to write a comment

Leave a comment